1. fakrul678@gmail.com : Fakrul islam Sumon : Fakrul islam Sumon
  2. mahedipramanik@gmail.com : Md. Mahedi Hasan Pramanik : Md. Mahedi Hasan Pramanik
  3. farukomar22@gmail.com : Omar Faruk : Omar Faruk
  4. onamikaafrinonu098@gmail.com : Onamika Afrin : Onamika Afrin
  5. admin@obirambanglanews24.com : Md. Shahjalal Pramanik : Md. Shahjalal Pramanik Sumon
  6. robinmahamudkhan007@gmail.com : Robin Mahamud Khan : Robin Mahamud Khan
  7. sapahar.sakib@gmail.com : Md. Sakib Hossen : Md. Sakib Hossen
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
ভেঙ্গে গেছে সাঁকো, চরম দূর্ভোগে ১২ গ্রামের মানুষ সিরাজগঞ্জে ছিনতাইকারী ও অজ্ঞান পার্টির ১৪ সদস্য আটক নালী ইউনিয়নের আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে এমপি দূর্জয় জন্মদিন উদযাপন উলিপুরে পন্ডিত মহির উদ্দিন স্কুলে ছাত্র ছাত্রী দের কাছে অবৈধ ভাবে টাকা উত্তলন-ফলোআপ নিউজ। প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা তিস্তার ভাঙ্গন ঠেকাতে এলাকাবাসীর নিজস্ব অর্থায়নে বাশ ও গাছ দিয়ে বান্ডাল নির্মাণ সিরাজগঞ্জে কাভার্ড ভ্যান-অটো ভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২ শাহজাদপুরে বন্যায় ভেঙ্গে পড়ল ৩৬ লাখ টাকার ব্রীজ মসিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে প্রায় বিলুপ্তির পথে বাঁশ ও বেত শিল্প আমন ধানের ক্ষেতে সবুজের হাসি

ইউরোপ সেরা বায়ার্ন মিউনিখ

আহসান তারিক
  • Update Time : সোমবার, ২৪ আগস্ট, ২০২০
  • ১০২ Time View

শত জল্পনাকল্পনা ছিল লিসবনের এই ফাইনালকে ঘিরে। পিএসজির প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ দেখছিলেন অনেকে, আবার অনেকে দেখেছেন অপ্রতিরোধ্য বায়ার্নের আরেকটি গোল উৎসব।

কিন্তু সকলের চাওয়ায় ছিল ইউরোপ সেরা হওয়ার লড়াইটা হোক ফুটবলীয়। আর হলও তাই কিন্তু ট্রফি জেতা হলনা নেইমারদের।পুরো ফ্রান্সকে কাঁদিয়ে ষষ্ঠবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লীগের ট্রফি নিয়েই বাড়ি ফিরছে জার্মান জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখ। পিএসজিকে ১-০ গোলে হারিয়ে লিসবনে নিজেদের হেক্সা পূর্ণ করল ফ্লিকের শিষ্যরা। তবে এরকম ফাইনাল ফুটবল এবং ফুটবল প্রেমীদের চোখে লেগে থাকবে অনেকদিন।দু’দলের চোখ জুড়ানো গতিময় ফুটবল চ্যাম্পিয়নস লীগ ফাইনালকে করেছিল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ।

কিন্তু প্রথমবার ফাইনালে উঠে আসা তারকাঠাসা পিএসজি অপ্রতিরোধ্য বায়ার্নকে কোণঠাসা করতে পারেনি। বরং হাত ছাড়া করেছে একেরপর এক সুযোগ। খেলার শুরু থেকেই একের পর এক আক্রমণ চালিয়েছে দুই দলই শুরু থেকেই ব্যস্ত সময় কাটাতে হয়েছে ম্যানুয়াল নুয়্যার এবং কেইলর নাভাস উভয়কেই। বিশেষত নুয়্যার আবার প্রমাণ করলেন কেন তিনি জার্মান সেরা গোলকিপার। এম্বাপ্পে-ডি মারিয়াদের হয়ে যাওয়া গোল তিনি একাই জাল থেকে ফিরিয়েছেন বেশ কয়েকবার।

 

জার্মান এই দেয়াল ভেদ করে যেতে পারেনি পিএসজির বল। কিছু দুর্দান্ত সেভ নাভাসও দিয়েছে। তবে ৫৯ তম মিনিটে কিমিচের দুর্দান্ত পাসে কিংসলে কোমেনের হেডটি আটকানোর ক্ষমতা নাভাস তো বটে কোনো গোলকিপারের ছিলনা। আর এই একমাত্র গোলেই পার্থক্য গড়ে উঠে যা শেষ পর্যন্ত পূরণ করতে পারেনি পিএসজি। মজার বিষয় হল একজন ফরাসির গোলেই প্রথমবারের চ্যাম্পিয়নস লীগ ছুঁয়ে দেখা হলো না ফরাসিদের। অন্যদিকে২০১২ সালের পর আবারও বায়ার্ন প্রমাণ করল তাদের শ্রেষ্ঠত্বের।পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে অপরাজিত থেকে দেখাল তারা শুধু বুন্দেস লীগ সেরা নয় তারা ইউরোপের অপ্রতিরোধ্য জার্মান গোল মেশিন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

বিভাগ সমূহ

সাইটের পেজ

© অবিরাম বাংলা নিউজ ২৪ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।এই সাইটের কোনো তথ্য বা ছবি অনুমতি ব্যতিত ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন। ©